বিশ্ব ইজতেমায় লাখো মুসল্লি

প্রতিবছরের মত শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমা । গতকাল শুক্রবার বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরুর দিন ছিল। প্রথম দিনে দেশের সর্ববৃহৎ জুমার জামাত অনুষ্ঠিত হয় এখন। সকাল থেকেই সর্বস্তরের মুসলমানরা জুমার জামাতে শামিল হওয়ার জন্য ইজতেমা মাঠের দিকে ছুটতে থাকেন।

শিশু কিশোর থেকে শুরু করে সব বয়সী মানুষের সমাগম ঘটে জুমার জামাতে। টঙ্গী, উত্তরা, কামারপাড়া, মিরপুর, আবদুল্লাপুরসহ আশপাশের এলাকার মসজিদে জুমার জামাতে মুসল্লির সংখ্যা ছিল খুবই কম।

ইতিমধ্যে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে গতকাল সকাল পর্যন্ত প্রায় ৮ হাজার বিদেশি মুসল্লি ইজতেমা ময়দানে এসে উপস্থিত হয়েছেন। গাজীপুর জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মো. মোমিনুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন। এর মধ্যে ভারত, পাকিন্তান, মোজাম্বিক, নাইজেরিয়া, পানামা, মিশর, ওমান, সুদান, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব-আমিরাত, কাতার, অস্ট্রেলিয়া, বরুনাই, কানাডা, কম্বোডিয়া, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, জার্মানি, ইরান, জাপান, মাদাগাস্কার, মালি, সেনেগাল, দক্ষিণ আফ্রিকা, তাঞ্জেনিয়া, ত্রিনিদাদ, রাশিয়া, আমেরিকা, বেলজিয়াম, ক্যামেরুন, চীন, ফিজি, ফ্রান্স, ইন্দোনেশিয়া, ইটালি, কেনিয়া, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, নিউজিল্যান্ড, নরওয়ে, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, শ্রীলঙ্কা, সুইডেন, থাইল্যান্ড, তুরস্ক, যুক্তরাজ্য, কোরিয়া, আলজেরিয়া, ইরাক, ফিলিস্তিন, কুয়েত, মরক্কো, কাতার, সোমালিয়া, সিরিয়া, তিউনিসিয়া, ইয়েমেন, বাহরাইন, জর্ডান, মৌরিতানিয়া, দুবাইসহ বিভিন্ন রাষ্ট্রের মুসল্লি রয়েছেন।রয়েছে বিদেশি মেহমানদের বিশেষ অ্যাপায়ন ব্যবস্থা।

বিভিন্ন দেশ থেকে আসা হাজার হাজার মেহমানদের জন্য মাঠের পশ্চিম-উত্তর কোণে করা হয়েছে ভিন্ন ভিন্ন ধরনের আপ্যায়ন ব্যবস্থা। ইংলিশ ও অ্যারাবিয়ানদের জন্য রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন তাঁবু। এখানে টেলিফোন ও ইন্টারনেট থেকে শুরু করে রয়েছে সকল ধরনের আধুনিক ব্যবস্থা। খাবারের ক্ষেত্রেও করা হয়েছে ভিন্ন ভিন্ন আয়োজন। সকালের নাস্তায় রয়েছে স্যুপ, ডিম, রুটির পাশাপাশি দুপুর ও রাতের জন্য বিরিয়ানি। এসব রান্নার জন্য ২ শতাধিক জিম্মাদার রয়েছে বলে জানান আয়োজক কমিটি।

তথ্য : সংগ্রহীত 

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন