রিজার্ভ চুরির প্রথম রায়ে ফিলিপিন্সের ব্যাংক কর্মকর্তা মায়া সান্তোস দেগিতো’র সাজা

ফিলিপিন্সের আঞ্চলিক আদালত বৃহস্পতিবার এই রায়ে মুদ্রাপাচারের আট দফা অভিযোগে দেগিতোকে দোষী সাব্যস্ত করে প্রতিটি ধারায় ৪ থেকে ৭ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে। সেই সঙ্গে ১০ কোটি ৯০ লাখ ডলার জরিমানা করা হয়েছে তাকে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় ফিলিপিন্সের রিজল কমার্সিয়াল ব‌্যাংক করপোরেশনের (আরসিবিসি) সাবেক কর্মকর্তা মায়া সান্তোস দেগিতোকে দোষী সাব্যস্ত করে সাজার রায় দিয়েছে দেশটির একটি আদালত। এর মাধ্যমে তিন বছর আগে বিশ্বকে কাঁপিয়ে দেওয়া ওই সাইবার চুরির ঘটনায় এই প্রথম কাউকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় দেওয়া হল।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ফিলিপিন্সের আঞ্চলিক আদালত বৃহস্পতিবার এই রায়ে মুদ্রাপাচারের আট দফা অভিযোগে দেগিতোকে দোষী সাব্যস্ত করে প্রতিটি ধারায় ৪ থেকে ৭ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে। সেই সঙ্গে ১০ কোটি ৯০ লাখ ডলার জরিমানা করা হয়েছে তাকে।

রিজার্ভ চুরির প্রথম রায়ে ফিলিপিন্সের ব্যাংক কর্মকর্তা মায়া সান্তোস দেগিতো'র সাজা
Rizal Commercial Banking Corporation (RCBC) Branch Manager Maia Santos Deguito takes her oath during the Senate hearing at the Senate building in Pasay city, south of Manila, Philippines, 15 March 2016. The Philippine Senate started its inquiry into the alleged 100 million US dollars worth of illegal funds coursed through the banking system and casinos in the Philippines. According to reports, the suspected illicit funds were supposedly part of millions of dollars hacked from the overseas accounts of the central bank of Bangladesh. 81 million US dollars from the account of the Bangladesh Bank was transferred by the US Federal Reserve Bank of New York to the RCBC in the Philippines while the 20 million US dollars wire transfer to Sri Lanka was foiled. In a series of banking transactions, the suspected illicit funds in RCBC were then withdrawn and remitted to offshore accounts after these were moved through local casinos. The Philippine government, through the Anti-Money Laundering Council, the Philippine Amusement and Gaming Corp. (Pagcor) and the National Bureau of Investigation, is likewise investigating all related accounts. EPA/MARK R. CRISTINO

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের নিউইয়র্ক ফেডারেল রিজার্ভ থেকে হ্যাকিং করে ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার ফিলিপাইনের মাকাতিতে জুপিটার স্ট্রিট শাখায় চলে যায়। তখন ওই শাখার ম্যানেজার ছিলেন মারিয়া দিগুইতো।

জানা যায়, যেসব একাউন্টধারীর নামে অর্থ গিয়েছিল বলে অভিযোগ তার মধ্যে রয়েছেন মাইকেল ফ্রান্সিসকো ক্রুজ, জেসি ক্রিস্টোফার ল্যাগ্রোসাস, আলফ্রেড স্যান্তোস ভারগারা ও এনরিকো টিওডোরো ভাসকুয়েজ।

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন