মুক্তাগাছায় পৌরসভায় কর্মবিরতি সমাপ্ত, অসহায় পৌরবাসী

মুক্তাগাছা পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীদের উদ্যোগে তিনদিনব্যাপী কর্মবিরতি পালন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) পৌর কার্যালয়ের সামনে কর্মকর্তা- কর্মচারীগণ অবস্থান নিয়ে কর্মসূচী পালন করেন ।

গত রবিবার (২৮জানুয়ারী) সকাল থেকে বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশন মুক্তাগাছা শাখার উদ্যোগে কর্মসূচী পালনকালে রাষ্ট্রীয় কোষাগার হতে বেতন ভাতা ও পেনশনসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা প্রদানের দাবী করা হয়। কর্মবিরতীর কারনে পৌর নাগরিকেরা অসহায় হয়ে পড়েন। গোটা শহর অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়ে যায়্ বাসা-বাড়ীর বর্জ্য পরিস্কার না করায় ভাগাড়ে পরিণত হয় শহরের গুরুত্বপূর্ণ অলিগলি। স্থবির হয়ে যায় নাগরিকদের দৈনন্দিন কার্যক্রম। অন্ধকারে চোর, ছিনতাইকারীদের আতঙ্কে রাত্রি পোহাতে হয় নাগরিকদের। শহরের কলেজ রোড, এন.এন পাইলট স্কুলের সামনে, হাসপাতাল গেইট, দরগাড় পাড়, লক্ষ্মীখোলা, নন্দীবাড়ী, ঈশ্বরগ্রাম, পাড়াটঙ্গী, বাণিজ্যিক এলাকা খ্যাত দরিচারআনি বাজার, মহারাজা রোডে জমে ময়লার স্তুপ। এতে দুর্গন্ধ ছড়ায় সর্বত্র।

দিনব্যাপি কর্মসূচিতে বাংলাদেশ পৌর কর্মকর্তা কর্মচারী এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক-১ ও সহকারী প্রকৌশলী মোঃ শাহজাহান কবীর, মোঃ কামরুজ্জামান কামাল, হুমায়ুন কবির, মো: জয়নুল আবেদীন এমএ বারী আকন্দ, মোঃ সাদেক মিয়া, নূরুল মোমেন খান, একেএম মাহবুব মোর্শেদ রাসেল, একেএম মোফাজ্জল হক দুদু, মো: শামীম কবির, সৈয়দ মোকছেদুল হক, হাসিবুর রহমান, মানসুরাতুন নাহার সুমি, খালেদা বেগম প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন