শনিবার মুক্তামনির অপারেশন ঢামেকে

বিরল রোগে আক্রান্ত সাতক্ষীরার কিশোরী মুক্তামনির অপারেশন সিঙ্গাপুরে নয়, বাংলাদেশেই হবে। আগামী শনিবার তার অপারেশন করা হবে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা জানান বার্ন ইউনিটের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন।
এ সময় মুক্তামনির মা উপস্থিত ছিলেন। অপারেশনের বিষয়ে তার পরিবারের সম্মতি নেওয়া হয়েছে। মুক্তামনি প্রায় এক মাস ধরে এই হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। মুক্তামনির (ফাইল ছবি)

ডা. সামন্ত লাল বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মুক্তামনিকে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা করাতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালের প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডাক্তার বি কে টাং অস্ত্রোপচারে অপারগতা প্রকাশ করেছেন।’
তিনি বলেন, ‘এতে আমরা হতাশ হইনি। আগামী শনিবার ১৩ সদস্যের অভিজ্ঞ চিকিৎসকের একটি দল তার অপারেশন করবেন।’
এ সময় সামন্ত লাল মুক্তামনির জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চান। বলেন, ‘মুক্তামনির অপারেশনে অনেক ঝুঁকি রয়েছে। যেকোনো কিছু হতে পারে। সব কিছু মাথায় রেখেই অপারেশন করা হচ্ছে। আপনারা দোয়া করবেন যেন, আমরা তাকে সুস্থ করে তুলতে পারি।’

তিনি জানান, হাতটি রেখে দিয়ে অপারেশনের সব রকম চেষ্টা করা হবে। এটা কোনো ভাইরাল রোগ নয়, জন্মগত রক্তনালীর রোগ। শুরুতেই ভাল চিকিৎসা পেলে ভাল হওয়ার সম্ভাবনা ছিল।
সংবাদ সম্মেলনে বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের পরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, মুক্তামনি হাত নড়াচড়া করতে পারে। ধারণা করা হচ্ছে, তার রোগটি ৬/৭ স্তরের মধ্যে সীমাবদ্ধ। এজন্য হাত কাটার প্রয়োজন নাও হতে পারে।

তিনি আরো বলেন, জীবন রক্ষার প্রয়োজনে হাত বাদ দেওয়ার প্রয়োজন পড়লে সেটি করা হবে। মুক্তামনির ৬/৭টি অপারেশন লাগতে পারে।
সংবাদ সম্মেলনে ঢামেকের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মিজানুর রহমান মুক্তামনির জন্য সকলের সহযোগিতা ও দেশবাসীর দোয়া চান।

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন