জিয়াউদ্দিন বাবলুর শ্বশুর হলেন হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদ

জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু এমপি ও মেহেজেবুননেছা রহমান (টুম্পা)’র বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচএম এরশাদের ভাগ্নিকে বিয়ে করেছেন তিনি। বিয়ে উপলক্ষ্যে সন্ধ্যায় গুলশানের লা মেরিডিয়ান রেস্টুরেন্টে প্রীতিভোজের আয়োজন করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১ টায় বারিধারায় এরশাদের প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন হয়। এই সময় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ, মহাসচিব রুহুর আমিন হাওয়ালাদার, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাবলুর স্ত্রী মেহেজেবুননেছা রহমান (টুম্পা) পেশায় একজন শিক্ষক। তিনি সাউথ ইস্ট ইউনিভার্সিটির বিবিএ বিভাগের প্রোগ্রাম ডিরেক্টর। টুম্পার প্রথম সংসারে এক মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। বাবলুর শাশুড়ি মেরিনা রহমান। জাপা থেকে সংরক্ষিত আসনে নির্বাচিত এমপি মেরিনা সম্পর্কে এরশাদের আপন বোন। এরশাদের একান্ত আগ্রহ ও উদ্যোগেই জিয়াউদ্দিন বাবলুর সাথে টুম্পার বিয়ে হয়েছে।

বিবাহ পরবর্তী অনুষ্ঠানে জিয়াউদ্দিন বাবলু এমপি-মেহেজেবুননেছা রহমান (টুম্পা)
বিবাহ পরবর্তী অনুষ্ঠানে জিয়াউদ্দিন বাবলু এমপি-মেহেজেবুননেছা রহমান (টুম্পা)

বিবাহ পরবর্তী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ মন্ত্রিপরিষদ সদস্যদের। রীতিমতো বিয়ের এই অনুষ্ঠান একটি রাজনৈতিক মিলন মেলায় পরিণত হতে যাচ্ছে। বাবলু এবং শ্বশুরকুল উভয়েই রাজনৈতিক পরিবার হওয়ায় প্রধান প্রধান দলের শীর্ষ নেতাদের দাওয়াত দেওয়া হয়েছে। বিয়ে পরবর্তী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে সমাজের বিশিষ্টজনদের ইতোমধ্যেই দাওয়াত দেয়া হয়েছে।

এর আগে ২০০৫ সালে জিয়াউদ্দিন বাবলুর প্রথম স্ত্রী ফরিদা সরকার ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে  মারা যান। ফরিদা নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন। বাবলু ফরিদা দম্পতির ঘরে এক সন্তান রয়েছে। পুত্র আশিক আহমেদকে নিয়ে আছেন জিয়াউদ্দিন বাবলু। ছেলে এমবিএ শেষ করে ব্যবসা করছেন, বিয়েও করেছেন।

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন