মুক্তাগাছায় চাঁদাবাজী মামলার আসামী জামিনে এসে বাদীকে প্রাণনাশের হুমকি

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় চাঁদাবাজী মামলায় জামিনে এসে বাদীকে প্রাণ নাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সিরাজুল হক;  ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় চাঁদাবাজী মামলায় জামিনে এসে বাদীকে প্রাণ নাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, থানার দুল্লা ইউনিয়নের হরিরামপুর গ্রামের পাগারিয়া হাজীর নিজস্ব সম্পত্তি তার পুত্রগণ ভোগ দখল করিয়া আসছিল। এরই মধ্যে এলাকার চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসী ফজর আলী (৫০), মধু মিয়া (৪৫), রমজান আলী (৩০), রফিকুল ইসলাম (২৭), শাহজাহান আলী (৩৫) উক্ত সম্পত্তির মালিকের নিকট ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তাদের নিজস্ব সম্পত্তিতে চাষাবাদে বাধার সৃষ্টি করে।

সূত্র মতে, দুল্লা ইউনিয়নের হরিরামপুর গ্রামের পাগারিয়া হাজীর পুত্র সাহাম্মদ আলী ও তার পুত্রগণ তাহার পৈত্রিক নিস্কন্টক সম্পত্তি ভোগ দখল করে আসছিল। জমির বিআরএস দাগ নং-৯৪/১০৩/১৩৫ খতিয়ান নং-১৬৬/৩৪-৮, মোট জমির পরিমান ২.৩৩ একর, মৌজা-দুল্লা। উক্ত জমি বাদী ও তার পুত্র যথাক্রমে, আব্দুল জলিল, আব্দুল কুদ্দুছ, আলামিন চাষাবাদ করে আসছে। স্থানীয় সন্ত্রাসী চাঁদাবাজ ফজর আলী, মধু মিয়া, রমজান আলী, রফিকুল ইসলাম, শাহজাহান আলী গংরা বাদী সাহাম্মদ আলীর নিকট ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। বাদী চাঁদা দিতে অস্বীকার করে।

গত ২০/৮/২০১৮ ইং তারিখে বাদী তার নিজ জমিতে চাষাবাদ করতে গেলে বিবাদী সন্ত্রাসী চাঁদাবাজরা দেশীয় অস্ত্র দা, ফালা, লাঠিসহ বেআইনী জনতাবদ্ধ হয়ে এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে বাদীর জমিতে অনধিকার প্রবেশ করে এবং বাদীকে হত্যার চেষ্টা করে। বাদী সেখান থেকে প্রাণে বেঁচে আসে। এ
ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়াম্যান, মেম্বারসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ সালিশ করে কিন্তু সস্ত্রাসীরা সালিশ অমান্য করে তাদের চাঁদার দাবীতে অটুট থাকে।

এ ব্যাপারে সাহাম্মদ আলী বাদী হয়ে ময়মনসিংহ বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করে। মামাল নং-৫৪৪/১৯। তারিখ- ২৭/০৪/২০১৯ ইং। বিজ্ঞ আদালত থেকে আসামীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করে পুলিশ। গত ১৯/০১/২০২১ ইং তারিখ আসামী মৃত ওমর আলীর পুত্র মধু মিয়াকে
গ্রেফতার করে। পরবর্তীতে আসামী রফিকুল ইসলাম, শাহজাহান, রমজান আলী বিজ্ঞ
আদালতে আত্মসমর্পন করলে বিজ্ঞ আদালত রমজান আলীকে জেলে পাঠানোর নির্দেশ
দিয়ে বাকী দুই জনকে জামিন দেন।

এদিকে জামিনে থাকা রফিকুল ও শাহজাহান
এবং পলাতক ফজর আলী তিন জন মিলে বাদী সাহাম্মদ আলীসহ তার পরিবার পরিজনদের
অব্যহত হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। বাদীর জমি আসামীদের বাড়ী সংলগ্ন হওয়ায় তারা জমিতে গেলেই তাদেরকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে। এমনকি পথে ঘাটে যেখানেই পাবে সেখানেই তাদের উপর আক্রমন করবে বলে হুমকি অব্যহত রেখেছে।

বাদী সাহাম্মদ আলী ও তার পরিবার পরিজন নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে যে কোন সময়
তাদের উপর আক্রমনসহ বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে।

এ ব্যাপারে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি দেওয়া
প্রয়োজন বলে অভিজ্ঞ মহল মনে করেন।

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন