মুক্তাগাছায় পরিচ্ছন্ন হলো কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার

'পরিচ্ছন্নতা শুরু হোক আমার থেকে.... পরিচ্ছন্নতার এই আন্দোলনে যুক্ত হোন আপনিও' প্রতিপাদ্য নিয়ে ঝোঁপঝাড় কেটে, লাকড়ি ও ফেলে রাখা ময়লা সরিয়ে মুক্তাগাছা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারকে পরিচ্ছন্ন করে তোলে  বিডি ক্লিন মুক্তাগাছার স্বেচ্ছাসেবকরা।

ফেরদৌস তাজ;  ‘পরিচ্ছন্নতা শুরু হোক আমার থেকে….পরিচ্ছন্নতার এই আন্দোলনে যুক্ত হোন আপনিও’ প্রতিপাদ্য নিয়ে ঝোঁপঝাড় কেটে, লাকড়ি ও ফেলে রাখা ময়লা সরিয়ে মুক্তাগাছা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারকে পরিচ্ছন্ন করে তোলে  বিডি ক্লিন মুক্তাগাছার স্বেচ্ছাসেবকরা।

স্বেচ্ছাসেবকদের শ্রমে বুধবার সকাল ১১ টায় ঝোপঝাড়, শুকানো লাকড়ির জায়গা দুপুর ১২ টায় হয়ে উঠে পরিচ্ছন্ন শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ।

এ সময়  বিডি ক্লিনের পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমে একাত্মতা প্রকাশ করে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করে স্বেচ্ছাসেবকদের অনুপ্রাণিত করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানা।

 

 

 

 

পরে তিনি তার ফেইসবুকে বিডি ক্লিন মুক্তাগাছাকে ধন্যবাদ জানিয়ে লিখেন, স্বেচ্ছাসেবকদের সাথে নিয়ে আজ মুক্তাগাছা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারকে পরিচ্ছন্ন করা হয়। আসুন সকলে মিলে নিজের শহরকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখি। এমন একটি মহৎ উদ্যেগ নিয়ে এগিয়ে আসার জন্য BD Clean Muktagacha কে অশেষ ধন্যবাদ। জন্মভূমির প্রতি সকলের এ মমতার জন্য সবার প্রতি রইলো অশেষ শুভকামনা।

সেই সাথে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ময়লা আবর্জনা ফেলা এবং এর পাশে কোন পরিবহণের গাড়ি না রাখার নির্দেশ প্রদান করেন তিনি।

The central Shaheed Minar is clean in Muktagachha
বিডি ক্লিন মুক্তাগাছার স্বেচ্ছাসেবক

বিডি ক্লিন মুক্তাগাছার সমন্বয়ক জান্নাতুল নাঈম চঞ্চল জানান, মুক্তাগাছার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারটি রক্ষণাবেক্ষণ এর অভাবে ঝোপঝাড়ে পূর্ণ হয়েছিলো। সেই সাথে অজানা লোকজন সেখানে জামা-কাপড় শুকানোসহ লাকড়ি শুকানোর কাজ করতো যা অত্যন্ত দৃষ্টিকটু। শহীদ মিনারের সামনে প্রতিনিয়ত দাঁড় করিয়ে রাখা হতো গাড়ি। এতে লোকচক্ষুর অন্তরালে পড়ে থাকতো ভাষার জন্য আত্মোৎসর্গকারী শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘের মিনার। বিষয়টি নজরে এনে পরিচ্ছন্ন করার সিদ্ধান্ত নেই আমরা।

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন