মুক্তাগাছায় জমি বিরোধে বসত বাড়ীতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ

মুক্তাগাছা উপজেলার বারকাহনীয়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বসতবাড়ীতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে।

মুক্তাগাছা উপজেলার বারকাহনীয়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বসতবাড়ীতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগে জানা যায়, রবিবার বিকাল ৪টার দিকে অভিযোগকারীর চাচা ময়নাল হোসেন ও তার তিন ছেলে কামরুল, রুবেল, আল-আমীন ও এনামূল লাঠি নিয়ে মঞ্জুরুলের বাড়ীতে হামলা করে ভাঙচুর শুরু করে। মঞ্জুরুল ও তার মা বাঁধা দিলে এনামুল মঞ্জুরুলের মাকে টেনে নিতে থাকে ও মারধর করে। এ সময় মঞ্জুরুল ৯৯৯ কল করে মুক্তাগাছা থানা পুলিশের সহযোগিতা চাইলে আধঘন্টার মধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এ সময় আক্রমণকারীরা পালিয়ে যায়।

মঞ্জুরুল জানান, তার পৈতৃক জমিতে গত বৃহস্পতিবারে এনামুল হক ও তার ৪ছেলে দখল করার জন্য ট্রাক্টর দিয়ে হালচাষ শুরু করে। বাঁধা দিলে তারা চড়াও হয়। এরপর এলাকায় শালিস বসলে তারা শালিসের সিদ্ধান্ত অমান্য করে হুমকি দিতে থাকে। পরে নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তার জন্য মুক্তাগাছা থানায় সাধারণ ডায়েরী করা হয়। সাধারন ডায়েরির কথা শুনে পুররায় আমাদের উপর হামলা করে তারা।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে জানতে চাইলে রুবেল হামলা ও ভাঙচুরের কথা অস্বীকার করে বলেন জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। তবে, তা মুরুব্বীরা মিলে সমাধানের কথা চলছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এস আই সিরাজ জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে হামলাকারীরা কাউকে পাইনি। ভাঙচুরের কোন আলামত পাইনি। বাদী বিবাদীরা মিমাংসা হওয়ার কথা চলছে। মামলা রুজু হয়নি।

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন