মুক্তাগাছায় ছাগলে গাছ খাওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ- নিহত ১

মাছ খামারের পুকুর পাড়ে পেঁপে গাছ ছাগলে খেয়ে ফেলাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের ঝগড়ায়  এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

 মাছ খামারের পুকুর পাড়ে পেঁপে গাছ ছাগলে খেয়ে ফেলাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের ঝগড়ায়  এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।
শনিবার মুক্তাগাছার গড়বাজাইলে এ ঘটনাটি ঘটেছে।
থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার খেরুয়াজানি ইউনিয়নের গড়বাজাইল গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল জলিল তার বাড়ির পাশেই একটি মাছের খামার করেন। খামারের পুকুর পাড়ে রোপণ করেন পেঁপে গাছ।
খামার সংলগ্ন বাসিন্দা বাদল মিয়াদের কয়েকটি ছাগল প্রায়ই পেঁপে গাছ খেয়ে ফেলে নষ্ট করে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কয়েকদিন ধরেই ঝগড়া চলছিল। শনিবার সকাল ১০টায় আবারো বাদল মিয়াদের ছাগল পেঁপে গাছ খেতে জলিলের মৎস্য খামারে গেলে দুই পক্ষের মধ্যে তুমুল ঝগড়া শুরু হয়।
ঘটনার এক পর্যায় বাদল মিয়া ও তার লোকজন লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে খামারের মালিক আব্দুল জলিলের ওপর হামলা চালায়। এ সময় বাধা দিতে গেলে জলিলের ছেলে হাবিবুর রহমান, দেলোয়ার হোসেন, মেয়ে জোনাকি আক্তার, ভাতিজা সোহেল রানা, সুরুজ আলী ও শফিক গুরুতর আহত হন। পরে তাদেরকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিন বিকেল সাড়ে তিনটায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোহেল রানা মারা যান।
মুক্তাগাছা থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন, এ ঘটনায় হত্যা মামলা নেওয়া হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে অভিযানও চালানো হচ্ছে।
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন