‘এভাবে টেস্ট খেলতে যাওয়া মোটেও আদর্শ নয়’

টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর আগে লাহোরের গাদ্দাফী স্টেডিয়ামে মোটে একদিন অনুশীলন করার সুযোগ মিলেছিল। এবার রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথম টেস্টের আগে বড় জোর ৫ আর ৬ ফেব্রুয়ারি- দুদিন প্র্যাকটিস করতে পারবেন তামিম, মুুমিনুল, মাহমুদউল্লাহরা। টেস্টের আগে ভিনদেশের আবহাওয়া, মাঠ, উইকেট আর পরিবেশ- পারিপার্শ্বিকতার সঙ্গে মানিয়ে নিতেই কদিন লেগে যায়। সেখানে রাওয়ালপিন্ডি গিয়ে মাত্র দুটি প্র্যাকটিস সেশন কাটিয়ে টেস্ট খেলতে নামা রীতিমতো অপর্যাপ্ত এবং কোনোভাবেই আদর্শ প্রস্তুতি নয়। বাংলাদেশ হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোও মানছেন টেস্টের আগে বিদেশের মাটিতে এত কম সময় আগে যাওয়া মোটেও আদর্শ নয়। তার ভাষায় অন্তত সপ্তাহখানেক আগে যাওয়া, একটি ওয়ার্মআপ ম্যাচ আর কয়েকটি প্র্যাকটিস সেশনই হতে পারে বিদেশের মাটিতে কোন টেস্টের আদর্শ প্রস্তুতি। ডোমিঙ্গো বলেন, ‘এটা কোনোভাবেই আদর্শ নয়। আপনি যখন দেশের বাইরে টেস্ট খেলতে যাবেন, তখন অন্তত ৭-৮ দিন আগে যাওয়া উত্তম। এছাড়া গিয়ে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলাও অতি জরুরি, কয়েকদিন প্র্যাকটিস সেশনের প্রয়োজনীয়তাও অনেক। কিন্তু রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের আগে আমরা কোনটাই করতে পারছি না।’ সেটা যে পরিবেশ-পরিস্থিতির কারণে এবং নিরাপত্তা সামগ্রিক বিচার বিশ্লেষণ করেই টেস্ট শুরুর মাত্র ৪৮ ঘন্টা আগে রাওয়ালপিন্ডি যাওয়া- তাও খুব ভাল জানা রাসেল ডোমিঙ্গোর। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড যে কোনোভাবেই ৭ দিনের বেশি পাকিস্তান অবস্থান করবে না, তা সবার জানা। মূলত, সে কারণেই বাংলাদেশ দল টেস্ট শুরুর মাত্র দুইদিন আগে রাওয়ালপিন্ডি গিয়ে টেস্ট খেলবে। এ বিষয়ে ডোমিঙ্গো বলেন, ‘আসলে এত কম সময় আগে গিয়ে টেস্ট খেলা ছাড়া আর আমরা কিই বা করতে পারি। আমরা গিয়ে পৌঁছাবো বুধবার সকালে। বুধ ও বৃহষ্পতি দুদিন প্র্যাকটিস করেই টেস্ট খেলতে হবে। যা মোটেও স্বস্তির নয়।’

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

আরো দেখুন

Close
Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন