মুক্তাগাছায় বঙ্গবন্ধু চত্বরের ফলক উন্মোচন

মুক্তাগাছা শহরের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সমৃদ্ধ শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ মাঠে প্রথমবারের মত প্রতিষ্ঠিত হলো বঙ্গবন্ধু চত্বর।

মুক্তাগাছা শহরের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস গাঁথা শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ মাঠে প্রথমবারের মত প্রতিষ্ঠিত হলো বঙ্গবন্ধু চত্বর।

সোমবার মহান বিজয় দিবসের ভোরে বঙ্গবন্ধু চত্বরের ফলক উন্মোচন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব কে এম খালিদ এমপি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী, উপাধ্যক্ষ মো: আব্দুল কাফি মিঞা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রণাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধা সত্য স্বপন চক্রবর্তী, সিনিয়র সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আজিজুল হক ইদু, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বিল্লাল হোসেন সরকার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আরব আলী, যুবলীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম জুয়েল প্রমূখ।

মুক্তাগাছায় বঙ্গবন্ধু চত্বরের ফলক উন্মোচনইতিহাস থেকে জানা যায়, ১৯৬৭ সালে ১লা জুলাই প্রতিষ্ঠিত এ কলেজ মাঠেই ৭১ এ মুক্তিযুদ্ধের সময় মুক্তিযুদ্ধের ১ম সাংগঠনিক ভিত্তি রচিত হয়েছিল। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এ কলেজ মাঠে বক্তৃতা দিয়েছিলেন। বিশ্রাম নিয়েছিলেন জমিদার বাড়ীতে। বাঁশ, লাঠি, কাঠের বন্দুক নিয়ে নবীন মুক্তিযোদ্ধাগন দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হয়ে এ মাঠেই দিক্ষা গ্রহন করেছিল। এ কলেজের শিক্ষার্থীরা অংশ নিয়েছিল মহান মুক্তিযুদ্ধে:। পরবর্তীতে তাদের সংগ্রাম ও ত্যাগের মহিমাকে স্মরণ করে নামকরণ করা হয় ‘শহীদ স্মৃতি’

প্রফেসর ইদ্রিস আলী সম্প্রতি শহীদ স্মৃতি কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেই এ মাঠের নোংরা আবর্জনা ও অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করে মাঠটিকে আকর্ষনীয় করে বঙ্গবন্ধু চত্বরে উন্মুক্ত মঞ্চ তৈরি করেন।

সোমবার প্রত্যুষে নামফলক উন্মোচনের মধ্য দিয়ে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বঙ্গবন্ধু চত্বরকে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন।

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন