ছেলের অপকর্ম নিয়ে মুখ খুললেন সাফাত আহমেদের মা

ছেলের অপকর্ম নিয়ে মুখ খুললেন বনানীতে দুই তরুণী ধর্ষণে অভিযুক্ত সাফাতের মা নিলুফার জেসমিন। তিনি বলেন, বাবার লাই পেয়েই ছেলের আজ এই অবস্থা। বাবাই ছেলেকে অসৎ কাজে উৎসাহ দিয়েছেন। নির্যাতিত দুই তরুণীর সঙ্গে যা হয়েছে তা সত্য হলে এটি অন্যায় বলেও অভিমত দেন তিনি।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, এত টাকা আর প্রাচুর্য চারিদিকে কিন্তু মনে শান্তি নেই। রাস্তার কুকুর থেকে শুরু করে সমাজের সকলেই এখন তাদের ঘৃণা করে। সারাদেশে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে তিনি বিব্রত ও ভীত। গত কয়েকদিন ধরে তিনি তার নিজের বাড়িতেও থাকতে পারছেন না। সাফাতের মা মনে করছেন, তার ছেলে আর কোনোদিন ঘরে ফিরতে পারবে না।

ছেলের অপকর্মের ব্যাপারে বলেন, সাফাত তার স্কুলে পড়ার সময় থেকেই মেয়েদের নিয়ে পার্টিতে যেতো ও বাসায় নিয়ে আসতো। আমি অনেকবার মানা করলেও তার বাবা সবসময় আমাকে বলতো, এই বয়সে এমন করবেই। সাফাত যখন আমার বৌমা পিয়াসাকে বিয়ে করে ঘরে এনেছিল তখন সেটি ভাঙার জন্য সাফাতের বাবাই সব রকমের চেষ্টা করেছিল। পিয়াসা থাকার সময় আমার ছেলেটা অনেক ভালো ছিল। পিয়াসাকে ডিভোর্স দেওয়ার পেছনে সব কলকাঠি নেড়েছে তার বাবা। তিনি বলেন, এই ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত তার ছিল না ও এটা তিনি পছন্দ করেননি।

নাঈম আশরাফ সম্পর্কে তিনি বলেন, নাঈম সারাক্ষণ আমার বাসায় পড়ে থাকতো। সাফাতের কাছ থেকে টাকা নিয়ে চলতো। এই ছেলেটাকে সাফাতের বাবাই ঘরে নিয়ে আসে ছেলের সঙ্গে থাকার জন্য। আমি কতবার বলেছি একে বাসায় না রাখার জন্য। কিন্তু আমাকে ধমকে চুপ করিয়ে দেয়া হতো।

তিনি বলেন, ছোট ছেলে ইফাতের জন্যও আমার ভয় হয়, বড়টার মতো নষ্ট হয়ে যায় কি না। অন্যায় করে থাকলে সাফাতের শাস্তি হোক, এটাই আমি চাই। কিছুদিন জেলে থাকলে টাকার গরম কিছুটা কমবে।

তথ্য সূত্র: ইত্তেফাক

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন