নতুন ১৪০০ বাস-ট্রাক ভারত থেকে আনা হবে : ওবায়দুল কাদের

দ্রুত সময়ের মধ্যে ভারত থেকে বাংলাদেশে ৬০০ বাস এবং ৮০০ ট্রাক আনা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রাজধানীর বনানীস্থ সেতুভবনে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা’র সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত  শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারত থেকে দ্রুত সময়ের মধ্যে ৬০০ বাস ও ৮০০ ট্রাক আসার কথা রয়েছে।  এ সংক্রান্ত যে সকল সমস্যা ছিলো তা কেটে গেছে।  খুব তাড়াতাড়ি টেন্ডার আহ্বান করা হবে। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে দুই-দেশের মধ্যে সাক্ষরিত চুক্তির আওতায় ৪.৫ বিলিন ডলার পাচ্ছে বাংলাদেশে।  যার পুরোটা ব্যয় করা হবে অবকাঠামো তথা যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে।

এ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে সাক্ষরিত থার্ড লাইন ক্রেডিটের চুক্তির আওতায় আমরা খুব শীগ্রহ বেনাপোল-যশোর হয়ে নড়াইল-ভাটিয়াপাড়া থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত রাস্তা চার লেনে উন্নিত করণ প্রক্রিয়া শুরু করব।  এছাড়াও, এ অর্থে- রামগড়-খাগড়াছড়ি-বুরুলিয়া থেকে চট্টগ্রাম এবং কুমিল্লা-ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে সরাইল পর্যন্ত পর্যন্ত রাস্তা চার লেনে উন্নীত করা হবে।

ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেন, বাংলাদেশের অবকাঠামো বিশেষ করে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নে ভারত কাজ করছে।  পদ্মাসেতুতে রেল চলাচলের ব্যবস্থা চালু হলে ঢাকার সঙ্গে ভারতের যোগাযোগ আরো সহজ হবে বলে আশাবাদ প্রকাশ করেন তিনি।

এছাড়া মঙ্গলবার ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বাংলাদেশে নিযুক্ত মালেয়েলিয়ার রাষ্ট্রদূত সৌজন্য সাক্ষাত করেন। সাক্ষাতে মালয়েশিয়া মেঘনা সেতুসহ কেরানীগঞ্জ থেকে হেমায়েতপুর পর্যন্ত এক্সপ্রেসওয়ে তৈরীতে বিনিয়োগে ইচ্ছা প্রকাশ করেছে বলে জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, মালোয়েশিয়া একটা সময় পদ্মাসেতুতে বিনিয়োগ করতে চেয়েছিলা। আমি নিজে গিয়ে মালোয়েশিয়ার সঙ্গে এমওইউ সাক্ষাতও করে এসেছিলাম।  তারপর কি হয়েছে আপনারা জানেন। পদ্মাসেতুর কাজ এখন অনেক দূর এগিয়েছে।  এখন তারা এসেছিলো আরও দুটি প্রস্তাবনা নিয়ে।

মালোয়েশিয়ার প্রস্তাব গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হচ্ছে বলে জানান মন্ত্রী।

আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Back to top button
Close

অ্যাডব্লক সনাক্ত

আপনার বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন বিবেচনা করুন